NexusPay একের ভিতর বহুবিধ সুবিধার একটা প্রয়োজনীয় অ্যাপ

নেক্সাস-পে হল ডাচ-বাংলা ব্যাঙ্কের আডভান্স লেভেলের একটা অ্যাপ যার মাধ্যমে আপনি অনেক ধরনের সুবিধা পেতে পারেন। এর সমস্ত সার্ভিসমুহ একদম ফ্রি। বলা চলে এটা একটা ভাল মানের ব্যাংকিং ব্যবস্থা যার মাধ্যমে নির্ভরযোগ্য এবং নিরাপদভাবে আপনার গচ্ছিত অর্থসমূহে প্রবেশাধিকার থাকবে এবং ইচ্ছেনুযায়ী তা ব্যবহার করতে পারেন। এই অ্যাপ ইন্সটল এবং সচল করতে হলে আপনাকে ডিবিবিএল এর অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে তা কিন্তু নয়। এমনকি রকেট অ্যাকাউন্ট থাকারও দরকার নেই। তবে নানাবিধ সুবিধা পেতে হলে আপনাকে ডিবিবিএল এর নেক্সাস ডেবিট কার্ড সংযুক্ত করতেই হবে। আমার নিজের অভিজ্ঞতা, ডিবিবিএল ওয়েবসাইটের তথ্য এবং তাদের কল সেন্টারের নির্বাহীদের সঙ্গে কথা বলে এই লেখাটা তৈরি করা হয়েছে।

 

নেক্সাস-পে এর মাধ্যমে আপনি কি কি কাজ করতে পারবেন?

১। এটার মাধামে আপনি টাকা প্রেরণ এবং গ্রহণ করতে পারবেন।

২। মাসে দশ হাজার টাকা পর্যন্ত ২এফএ টোকেন অর্থাৎ হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়ার টোকেন ছাড়ায় পাঠাতে পারবেন।

৩। তালিকাভুক্ত শপ এবং অনলাইনে কেনাকাটা করতে পারবেন।

৪। বিল পে করতে পারবেন।

৫। সংযুক্ত কার্ডগুলোর ব্যালেন্স চেক এবং জমা-খরচের বিবরণী দেখতে পারবেন।

৬। মোবাইল ফোনের ব্যালেন্স টপ আপ করতে পারবেন।

৭। অন্য কাউকে টাকা পাঠানের জন্য অনুরোধ পাঠাতে পারবেন।

৮। রকেট অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে পারবেন।

৯। যে কোন লোকাল মোবাইল নম্বরে টাকা পাঠানো যাবে। তবে রকেট অ্যাকাউন্ট একটিভ করলে টাকা উত্তোলন করা যাবে। না হলে টাকা ফেরত চলে যাবে।

১০। দেশের বাইরে থেকেও আপনি এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন।

লয়্যাল্টি পয়েন্ট (Loyalty Point) কার্ড

নেক্সাস-পে অ্যাপ ইন্সটল করে সচল করলে লয়্যাল্টি পয়েন্ট কার্ড” ডিফল্ট আকারে তৈরি হয়। এই কার্ড থেকে আপনি অন্য কোন কার্ড বা অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে পারবেন না। তবে অ্যাপে সংযুক্ত করা অন্য যে কোন কার্ড থেকে এই কার্ডে টাকা সেন্ড করতে পারবেন। সমস্ত বোনাস এবং ক্যাশব্যাক এই কার্ডে জমা হয়। আপনি এই টাকা দিয়ে কেনাকাটা, মোবাইল ফোন টপ আপ, মার্চেন্ট পেমেন্ট করতে পারবেন।

 

নেক্সাস-পে এর কিছু অফার

১। লয়্যাল্টি পয়েন্ট কার্ড প্রোগ্রামের মাধ্যমে ডিস্কাউন্ট এবং ক্যাশব্যাক।

২। নিজের মোবাইল ফোনে টপ আপ করে ৫% ক্যাশব্যাক।

৩। আনলিমিটেড ভাবে প্রতি রেফারেলের জন্য ৫০ টাকা উপার্জন।

৪। যে কোন জায়গায় কেনাকাটা করে আকর্ষণীয় ক্যাশব্যাক এবং বোনাস অফার গ্রহণ।

৫। ১০, ০০০ এর বেশি শপিং পয়েন্টে নেক্সাস-পে কার্ড দিয়ে পেমেন্ট করতে পারবেন।

৬। বিভিন্ন কার্ড ডাউনলোড করা যায় এবং বিনা খরচে সেই কার্ডগুলো ব্যবহার করে টাকা পাঠানো যায়।

৭। যে কোন মোবাইল ফোন নম্বরে বিনা ফি তে টাকা পাঠান যায়।

৮। অ্যাপে সংযুক্ত করা ডিবিবিএল ছাড়া অন্য যে কোন ব্যাঙ্কের কার্ড থেকে লয়্যাল্টি পয়েন্ট কার্ডে টাকা পাঠালে ১ম বার ডিপোজিটের জন্য ১০% ক্যাশব্যাক পাওয়া যায়।

৯। অনলাইন ডিসকাউন্ট এর সুবিধা।

১০। নেক্সাস-পে এর ডিসকাউন্ট এবং যে কোন অফারের নোটিফিকেশন সঙ্গে সঙ্গে জানানো হয়।

২এফএ হার্ডওয়্যার টোকেন

নেক্সাস-পে এর ফিচারসমূহ

১। ডিবিবিএল এর সম্পূর্ণ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে পুরো কিউআর এবং এনএফসি পেমেন্ট ব্যবস্থা।

২। এটিএম কার্ড ব্যতীত এটিএম বুথ থেকে টাকা উত্তোলনের সুবিধা।

৩। কিউআর, এনএফসি, ফোন, রকেট এবং কার্ড নম্বর ব্যবহার করে টাকা গ্রহণ।

৪। এটা অন্য ব্যাংকের কার্ড, রকেট, ডিবিবিএল, নেক্সাস এবং এজেন্ট ব্যাংক এর একটা সমন্বিত সিস্টেম।

৫। খুব সহজেই এক সিস্টেম থেকে অন্য সিস্টেমে টাকা পাঠানো যায়।

৬। ১০ মিনিটের জন্য টেম্পোরারি কার্ড নম্বর তৈরি করে অনলাইন পেমেন্ট প্রদান করা যায়।

৭। সহজেই বিল প্রদান করা যায়।

৮। ডিবিবিএল এর বিবরণী দেখা যায়।

৯। ডিবিবিএল এর সর্বশেষ বিবরণসমূহ জানা যায়।

১০। সংযুক্ত করা কার্ড যে কোন সময় অকার্যকর করা যায়।

নেক্সস-পে এর মাধ্যমে টাকা পাঠানোর লিমিট

এটার কিছু লিমিট আছে। যেমন কোর ব্যাংক থেকে কোর ব্যাঙ্কে অর্থাৎ ডিবিবিএল থেকে ডিবিবিএল অ্যাকাউন্টে দিনে ১ লক্ষ এবং মাসে ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত টাকা পাঠাতে পারবেন। ট্রানজাকশন লিমিট দৈনিক ৫টি এবং মাসে ৬০টি। তেমনিভাবে কোর ব্যাংক থেকে এজেন্ট ব্যাংক এবং রকেটে টাকা পাঠানো এবং গ্রহণের কিছু লিমিট আছে। বিস্তারিত জানতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন। মাসে দশ হাজারের বেশি টাকা পাঠাতে হলে ২এফএ টোকেন অর্থাৎ হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়ার টোকেন প্রয়োজন হবে। ডিবিবিএল যে কোন শাখায় আবেদন করে এটা বিনা মূল্যে সংগ্রহ করতে পারবেন।

নেক্সাস-পে  অ্যাপের সব ফিচার এখনো পুরোপুরি চালু হয়নি। মাসে ১০ হাজারের বেশী টাকা পাঠাতে গেলে ২এফএ টোকেন লাগে। এটা অনেক নিরাপদ ব্যবস্থা। তবে আমার মনে হয় যে কোন পরিমাণ টাকা পাঠানের জন্য ২এফএ টোকেন ব্যবস্থার অপশন রাখা উচিত। যেহেতু এটা এখনো সম্পূর্ণ হয়নি তাই ব্যবহার করতে গেলে কিছু কিছু সমস্যা দেখা দেয়। সার্বিকভাবে বলা চলে এটা অনেক ভাল মানের একটা অ্যাপ। এটা যেমন আপনার সময় বাঁচাবে তেমনিভাবে আপনি নিরাপদের সঙ্গেই এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। কেননা, টাকা পাঠাতে গেলেই নেক্সাস-পে অ্যাপের পিন, ২এফএ এর পিন এবং টোকেন নম্বর দরকার হবে। উল্লেখ্য টোকেন নম্বর প্রতি মিনিটে মিনিটে পরিবর্তন হয়। নতুন নতুন ফিচার প্রতিনিয়ত যোগ হচ্ছে এই কার্ডে। তাই এবার ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

Level 4

আমি আব্দুল্লাহ আল ফারুক। Digital Marketer, Self Employed, Bogura। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 34 টি টিউন ও 20 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 23 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস