অপ্পো এন১ (oppo n1), একটি স্মার্ট পছন্দ আপনার জন্য

অপ্পো এন১ (oppo n1)বিশ্বের প্রথম ফোন যেখানে সায়ানোজেনমড আগে থেকেই ইনস্টল করা। গত ক্রিসমাসে রিলিজ হওয়া ফোনটি তার নিজস্বতা নিয়ে বাজার গরমই করে রেখেছিলো। এর স্বাভাবিক সৌন্দর্যতা, উচ্চমানের হার্ডওয়্যার, স্পেশাল ক্যামেরা অপশন, বিগ স্ক্রিন (৫.৯”) এইচডি এলসিডি সব মিলিয়ে ব্যাবহারকারী হিসেবে আপনি যেমনটি চাইতে পারেন তেমন একটি ফোন এই অপ্পো এন১(oppo n1)। আসুন আগে দেখে নিই ফোনটির স্পেসিফিকেশন

nexusae0_wm_DSC00499

ডিজাইনঃ অপ্পো এন১(oppo n1) এর ডিজাইন নিয়ে আসলে বেশি কিছু বলার নেই। এর সৌন্দর্যটা এত স্বাভাবিকভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে, দেখতেই ভালো লাগবে আপনার। এটা এইচটিসির মতো খুব জমকালোও না আবার স্যামসাং এর গ্যালাক্সী ফোনের অনুভূতি না পেলেও এ দুটোর মাঝামাঝি একটা ভাব আপনি পাবেন যা খারাপ লাগবেনা কখনোই। অপ্পো এন১(oppo n1)হলো সিম্পলি সুন্দর একটা ফোন।

গঠনঃ অপ্পো এন১(oppo n1) এর বাহ্যিক গঠন অনেকটা নোকিয়ার ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডিজাইনের মত। দেখতে সুন্দর, ব্যাবহারে আরাম এবং বেশ শক্তপোক্ত এবং টেকসই। এর ডিজাইন এবং সাইজ এমন ভাবে করা হয়েছে এটা হাতে নিলে হাত ভরে উঠবে, কিন্তু উপচে পড়বেনা মানে খুব বড় বলে মনে হবে না। এই ফোনের বাইরের অংশ ম্যাট পলিকার্বনেট (এক ধরনের প্লাস্টিক), ভেতরের দিকটাতে আবার স্টিল ফ্রেম এর সাপোর্ট দেওয়া। ফোনের বাহ্যিক গঠন আপনার মন ভরাবে।

ওজনঃ এবার আসুন জানি এটার ওজন সম্পর্কে। অপ্পো এন১(oppo n1) এর বাইরে হালকা স্টিল ফ্রেম আর শক্তপোক্ত পলিকার্বনেট এর কারোনে এর ওজোনটা একটু বেশি লাগতে পারে আপনার কাছে। গ্যালাক্সী নোট ৩ অথবা গ্যালাক্সী মেগা ৭.৫ এর চেয়ে হালকা বেশী হতে পারে। পরিমানটা হিসেব করলে প্রায় অর্ধেক পাউন্ড বা ২২৫ গ্রামের কিছুটা কম হবে। মানে দুটো অপ্পো এন১(oppo n1) এর ওজন হবে প্রায় এক পাউন্ড বা ৪৫০ গ্রাম।

ডিসপ্লেঃ অপ্পো এন১(oppo n1) এর ডিসপ্লের ইউজার রিভিউ ১০ আর ক্রিটিক রিভিউ ৯। তার মানে বুঝতেই পারছেন কি ধরনের ডিসপ্লে আছে এই ডিভাইসে। কারন অপ্পো তার ফোনের এই অংশে গুরুত্ব দিয়েছে খুব বেশি। অপ্পো এন১(oppo n1) এ আছে সর্বোচ্চ মানের ১০৮০পি এলসিডি ডিসপ্লে, যা আপনার ফোন চালানোর অভিজ্ঞতার খাতায় ভালোলাগার অংশটুকু দীর্ঘায়িত করবে। এর কালার ব্যালেন্স, ব্রাইটনেস, ভিউ এঙ্গেল সব কিছুই আপনার ভালো লাগার মত করেই সেট করা,আর হ্যা ১০৮০পি ডিসপ্লে ফোনের সাইজের সাথে কখনোই বেইমানী করবেনা। যদিও ৫.৯” স্ক্রিন পাওয়ার অফ-অন কিছুটা সময় নেয় স্যামসাং এর পুরানো আমোল্ড ডিসপ্লের মতো।

ক্যামেরাঃ নেক্সাস ৫ তো কেউ ব্যাবহার করেন নি? নাকি করে ফেলেছেন। যদি করে থাকেন তাহোলে অপ্পো এন১(oppo n1) এর ক্যামেরা ব্যাবহার করার সময় আপনি সেরকমই একটা ফিল পাবেন। তবে এর অটো ফোকাস খুব স্লো, ক্যাপচার টাইম ও একটু বেশি। তবে এর ছবির কোয়ালিটি বা মান এক কথায় অসাধারন। ফোনোগ্রাফি (ফোন ফটোগ্রাফী) আপনার শখে পরিনত হতে পারে। তামাম স্মার্ট ফোনের ক্যামেরা যদি ১০ এ ৩/৪ পায় আপনি একে অনায়াসে ৫/৬ মার্ক দিতে রাজি হবেন। ছবি তোলার সময় এর ব্রাইটনেস, শার্পনেস, ফোকাস সব কিছুই আপনার জন্য উপাদেয় করে তৈরী করা। আর এই ফোনের মূল বিশেষত্বগুলোর একটি কিন্তু ক্যামেরা। ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, 206° রোট্যাশন এঙ্গেল, এইচডিআর, ৮ সেকেন্ড পর্যন্ত লং এক্সপোজার ;আবার আছে সুইভেল অপশন। ভালো তো ভালো না??
217792b6-c9cd-45ee-b954-48b1a7e0eda4_oppo-n1

ব্যাটারীঃ ডিসপ্লের মতোই অপ্পো এন১(oppo n1) এর ব্যাবহারকারীরা সবাই এর ব্যাটারী পারফর্মেন্স এও বেজায় খুশী হয়ে দশে দশ উপহার দিয়েছে। বর্তমানে এই মর্তে উৎপাদিত সকল এন্ড্রয়েড ফোনের মাঝে সবচেয়ে বড় ব্যাটারীর মালিক অপ্পো এন১। ৩৬১০mah ধারন ক্ষমতার লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারী যা স্বাভাবিক ব্যাবহারে আপনি খুব সুন্দর ভাবে দুই দিন আব ৪৮ ঘন্টা খানিকটা নিশ্চিন্তে কাটাতে পারবেন, দিনে কয়েকঘন্টা ওয়াই-ফাই চালানোর পরেও। অপ্পো আসলে চায় যে সত্যিকারের ফোন এডিক্টরা তাদের ফোনের কাছেই থাকুক। মানুষতো খুশি হয়ে দশে দশ দেবেই।

সাউন্ডঃ অপ্পো এন১(oppo n1) এ আছে বটম ফায়ারিং স্পিকার অর্থ্যাত এর স্পিকারের অবস্থান বডির নিচের দিকে। আর সাউন্ড মাশাল্লাহ ভালোই। তবে গ্যালাক্সী এস৫ এর মতো এতটা চমৎকার না হলেও খারাপ বলা যাবেনা কোনমতেই। এদের হেডফোনের সাউন্ড অমায়িক, মানে ভালো, এখনো কেউ খারাপ বলেনি, বলার মতো কিছু পায়নি।
nexusae0_wm_DSC00492

স্পেসিফিকেশনঃ

প্রসেসর : 1.7GHz quad-core Qualcomm Snapdragon 600
নেটওয়ার্ক কম্পিটেবিলিটি: Penta-band HSPA+
অপারেটিংসিস্টেম : CyanogenMod (based on Android 4.3)
ডিসপ্লে : 5.9" IPS-LCD 1920x1080 (373 DPI)
মেমোরী : 2GB RAM / 16 or 32GB internal
ক্যামেরা : 13MP rear with swivel action
ব্যাটারি : 3610mAh, non-removable
ওয়্যারলেস : Wi-Fi A/B/G/N, NFC, Bluetooth 4.0
পোর্টস / এক্সপান্ডেড : MicroUSB / none
পুরুত্ব : 9 mm
ওজন : 220 gm

আরো কিছুঃ অপ্পো এন১ পাওয়া যাচ্ছে ১৬ এবং ৩২ জিবি স্টোরেজ কোয়ালিটিতে। এর ওয়্যারলেস অপশনটি নতুন কোন অভিজ্ঞতা আপনার হবেনা হয়ত। বাকি অন্য সব স্মার্ট ফোনের মতই এই ফোনেও আপনি স্বাভাবিকভাবেই ওয়্যারলেস ব্যাবহার করতে পারবেন।

এই ফোনের ব্যাটারী নিয়ে তো বললাম একটু আগেই। এতো চার্জ থাকলে কথা বলতে সমস্যা হবার কোন কারন নাই। তবে কথা বলার সময় টাচ হয়ে এক্সিডেন্টলি নতুন কোন যায়গায় ফোন চলে যাবার রিপোর্টও আছে। যদিও ব্যাপারটা সবসময় ঘটেনা, তবুও জেনে রাখুন ব্যাপারটা।

তো কি মনে হয়? কেমন হবে অপ্পো এন১(oppo n1) যদি হাতে থাকে।

আমাদের সাথে থাকুন, ভালো থাকুন, শুভ কামনা।

ধন্যবাদান্ত্যেঃ আমার ড্রয়েড

Level 0

আমি মেহেদী হাসান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 23 টি টিউন ও 117 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

http://www.dhrubohost.com, ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন, বাজেট ওয়েব হোস্টিং, বিজনেস ওয়েব হোস্টিং, রিসেলার হোস্টিং, ভিপিএস এবং SSL সার্টফিকেট প্রোভাইডার। ফেসবুকে পাবেনঃ https://fb.com/DhruboHost, হটলাইন : +88 01795 470074


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

excelent feature. price koto?

Level 0

forty thousand up hoba @ Black opps