Deep Fake Technology : ভবিষ্যতে গণতন্ত্রের এক ধংসাত্বক রূপ

বহূদিন পর আবার টেকটিউনস কমিউনিটিতে ফিরে এলাম। টেকটিউনস কমিউনিটিকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে আজকের টিউন নিয়ে বিস্তারিত লিখছি। আজকের টিউন হলো " Deep Fake Technology :- ভবিষ্যতে গণতন্ত্রের এক ধংসাত্বক রূপ "

কল্পনা করুন যদি কোনো মন্ত্রীর একটা ফেক ভিডিও নির্বাচনের আগের দিন বের হয়, তাহলে সেই মন্ত্রীর রাজনৈতিক পেশার উপর কেমন প্রভাব পড়বে এবং সেই মন্ত্রীর প্রতি জনসাধারণের মতামত কেমন বদলে যাবে! আপনারা আগে যেই ধরনের ফেক ভিডিও দেখতে অভস্ত্য আমি সেই ধরনের ভিডিওর কথা বলছি না! এখানে কোনো ধরনের সাউন্ড এডিটিং বা ভিডিও এডিটিং সফটওয়ারের দরকার পরে না। এই টেকনোলজিটি পুরোপুরি নতুন, এর নাম হলো " Deep Fake Technology". এই টেকনোলজি ভবিষ্যতে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতে পারে।

কিছু মাস আগে আমেরিকার প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার একটি ফেক ভিডিও বের হয়েছিল। এই ভিডিওটি নিচে দেওয়া হয়েছে।

 

এই ভিডিও তে কৃত্রিম ওবামা তৈরি করা হয়েছে। এখানে রিসার্চারা আর্টিফিশিয়াল ইন্টালিটিজেন্স নিউরাল নেটওয়ার্ক দিয়ে ওবামার মুখের একটা মডেল বানিয়েছে এবং এই মডেলকে ওবামার ফুটেজ আর সাউন্ড এর সাথে মেলানো হয়েছে। রিসার্চারা ওবামার ১৪ ঘন্টার ভিডিও থেকে এই মডেল তৈরি করেছে যেখানে যেকোনো মানুষের কণ্ঠস্বরকে কৃত্রিম ওবামার মুখের নড়াচড়ার সাথে সামঞ্জ্যোস রেখে মিলিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সবশেষে, এই টেকনোলজিকে যদি নিয়ন্ত্রন না করা যায় তাহলে গণতন্ত্র ধংসের মুখে পড়তে পারে।

আপনাদের যদি এই টিউনটি ভালো লেগে থাকে টিউমেন্ট করতে পারেন, আপনাদের টিউমেন্ট আমাকে আরো ভালো মানের টিউন করতে উৎসাহিত করবে। আজকে এই অবধি।

Level 3

আমি অভিজিত চৌধুরী। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 14 টি টিউন ও 30 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 9 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 6 টিউনারকে ফলো করি।

লিখতে চাই ,নিজেকে প্রকাশ করতে চাই।লেখার মাধ্যমে অন্যকে জানাতে চাই।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস