ফ্রিল্যান্সিং করেন ; কিন্তু তাই বলে কি সবার কাজ করবেন ? আসুন জেনে নিই –

গতকাল একটা টিউন করলাম ; যা সারা পেলাম আজ আবার লেখার জন্য হাত নিশপিশ করতেছে, তাই ঘুম থেকে উঠেই বসে পড়লাম। তাহের ভাই কে ধন্যবাদ, তার উৎসাহ না পেলে আজ আর আমার এটা লেখা হতো না।

আসুন জেনে নিই ওডেস্কে/ফ্রিল্যান্সার এ কাদের কাজ করার আগে একটু ভেবে করবেন। লিস্টটা খুবই ছোট। নং ওয়ানে আছে আমাদের প্রিয় বন্ধু ভারত। ওদের ক্ষেত্রে কি কি সমস্যা বিস্তারিত বলি। তারা বলবে টাকা নিয়ে ভাববেন না। কাজ করার শেষে আপনাকে বোনাস ও দিবো। প্রথমে যদি ১০০ ডলার এ কাজ ফিক্স করেন। পরে আরো কয়েকটা টাস্ক দিবে। মোটামুটি ভাবে ২০০ ডলার এর কাজ করাই নিবে। কাজ মোটামুটি শেষের দিকে হলে সে হাওয়া হয়ে যাবে আপনাকে কোন পেমেন্ট না দিয়েই। আমি যা দেখেছি তাদের ভালো ভালো কিছু কোম্পানী ও এমন করে যারা তাদের রাজ্য মোটামুটি বিখ্যাত। প্রথম প্রথম যারা ফ্রিল্যান্সিং করেন তাদের টাকা মাইর যায় বেশি। সেজন্য অনেকে হতাশায় ডুবে পরেন। আপনাদের জন্য আমার পরামর্শ কার কাজ করছেন আগে যাচাই করে নিন। কোন সন্দেহ থাকলে আপ-ফ্রন্ট নিন।না হয় বলে দিন আমি আপনার কাজ করবো না। কাজের জন্য একেবারে মরিয়া হয়ে উঠবেন না। টাকা ইনকাম আপনি পরেও করতে পারবেন , এবং ভালো ভাবেই করতে পারবেন, কিন্তু ক্যারিয়ার এর প্রথমে একটা খারাপ ফিডব্যাক আপনার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারকে হুমকির মুখে ফেলতে সক্ষম। আমি এখন কোন ইন্ডিয়ান এর কাজ করতে গেলে ৫০% আপফ্রন্ট ছাড়া কাজ করি না। পূর্বের অভিজ্ঞতা খুব তিক্তকর।

এবার আসি আর এক জায়ান্ট এর কাছে , নাম ফিলিপাইন। তেনারা খুবওই উচ্চ বংশীয় এবং তেনারা মনে করেন তেনাদের সময় ছাড়া অন্যকারো সময়ের কোন দামই নাই। তেনারা কি করবেন, আপনাকে ৮টায় অনলাইন এ থাকতে বলবেন এবং তিনি ১০টায় জানাবেন যে আজ না কাল কথা হবে। তেনারা ১০ ডলার এর কাজ ১ ডলার এ করাই নিতে পারদর্শী। আমি অবাক হই তারা ওয়ার্ডপ্রেস এক্সপার্ট চান ১ ডলার পার আওয়ার এ। আবার তারা লোক ও পেয়ে যান। এদের থেকে একটু সাবধান। তাদের কাছে আপফ্রন্ট চেয়েও আপনি পাবেন না। তাই তার আগে ফিডব্যাক মিনিমাম ৪০-৫০টা এবং কত পে করেছে সেটা দেখে নিন। যদি রিলাইএবল হয় তবেই তার কাজ করুন।

এই গেল ২ বিগ জায়ান্ট এর কথা। কিন্তু শ্রীলংকান এবং পাকিস্তানিদের এর ক্ষেত্রে ও সাবধানতা অবলম্বন করবেন।

আপ-ফ্রন্ট নিয়ে কিছু কথা। অনেকেই বলেন, আপফ্রন্ট কত চাওয়া উচিত ? ৫ ডলার এর কাজ আপফ্রন্ট চাওয়া কি ঠিক হবে ? এসব হাবি জাবি। আপনি একটু ভালভাবে চিন্তা করে দেখেন তো আপফ্রন্ট সিস্টেমটা কেন দেওয়া হয়েছে বলে আপনার মনে হয়? যদি আপনার বায়ারকে বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে না হয় শুধুমাত্র তখনই আমি আপফ্রন্ট চাই। যেমনঃ একেবারে নতুন বায়ার (এটাই ফার্স্ট কাজ তার), পূর্বের ফিডব্যাক ভালো না এমন বায়ার, আগের কন্ট্রাকটর দের কোমেন্ট এ পেমেন্ট না দেয়ার আভাস পেলে, সাব-কন্টিনেন্ট এর বায়ার হলে, ফিলিপিনো হলে, আর যদি খুব বড় প্রজেক্ট হয় তাহলে কাজ ২০/৩০% করার পর কিছু আপফ্রন্ট চাই।

আমি একজন বায়ার এর কাজ করেছি, সে আমেরিকান। National PC Solution তার কোম্পানীর নাম। ৫০০ ডলার এর কাজ। একটু বড়ই। আমি তার কাছে কোন আপফ্রন্ট চাই নাই। কাজটা ১ মাস পর যখন শেষ হয় সে আমাকে আমার অংশের পেমেন্ট (২০০ ডলার) বলার আগেই করে দেয়। প্রশ্ন হলো আমি আপফ্রন্ট চাই নাই কেন ? চাই নাই কারন, আমি আগেই দেখেছি যে সে অলরেডি ওডেস্কে ১ কোটি ৮৭ লক্ষ ডলার খরচ করেছে। তার কাছে ৫০০ ডলার ২০০ ডলার কোন টাকা ই না। আমার টাকা মেরে সে বড়লোক হবে না।

এই ব্যাপারগুলো আসলে খুবই ছোটখাট। অনেকে এতো হিসাব কিতাব করেন না। কিন্তু আমি বলবো হিসাব করতে। অন্য ১০ দশজনের থেকে নিজেকে আলাদা করুন। সফলতা আসবেই।

বিঃদ্রঃ ব্যতিক্রম সব জায়গায় যেমন আছে ; এখানে ও আছে। ধন্যবাদ সবাইকে। 🙂

Level 0

আমি মেহেদী হাসান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 23 টি টিউন ও 117 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

http://www.dhrubohost.com, ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন, বাজেট ওয়েব হোস্টিং, বিজনেস ওয়েব হোস্টিং, রিসেলার হোস্টিং, ভিপিএস এবং SSL সার্টফিকেট প্রোভাইডার। ফেসবুকে পাবেনঃ https://fb.com/DhruboHost, হটলাইন : +88 01795 470074


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

Thanks

একটা ইম্পরট্যান্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করার জন্য ধন্যবাদ

১০০% সহমত। ভারতিয়দের সাথে কাজের অভিজ্ঞতা বরাবরই তিক্ত। একবার বায়ারের কোঅপারেশন না পেয়ে সারাদিন খেটেছি। কাজটা ছিল মাত্র ১০ ডলারের এবং করতে মাত্র ১০ মিনিট লেগেছিল। কিন্তু তার হোস্টিংএ ফিচার ডিসেবল করে রাখা কথাটা বুঝতেই চায়না। আবার আমার হোস্টিং এ টেস্ট না করেই বলে করেছি। শেষে আবার অডেস্কে পোষ্ট করল, আবারতাকে কন্টাক করে বললাম স্কাইপে আমাকে ১০ মিনিট সময় দাও। আল্লাহর রহমতে সে দিল এবং বোঝাতে পেরে হাফ ছেড়ে। প্রায় ১০ ঘন্টা এক্সট্রা কাজ অফুরন্ত স্নায়ুচাপের বিনিময়ে বোনাস দিল ৩ ডলার্। পরে আরেকবার ৬০০ ডলার বাজেটের কাজ করেদিতে বলেছিল, আমি পলাইছি।

    @আদনান: হা হা , আসলে যাদের এই সব পাবলিকদের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে তারা জানে যে এসব কতটা তিক্তকর হয়। 😀

আমি ওডেস্ক এ এখনো কাজ করি নাই । আমি তেমন কিছু জানিও না । আমার জন্য কোন কাজ গুলু ভালো হবে । আমি লিখতে পছন্দ করি । এইটা ছাড়া আমার আর তেমন কোন গুন নাই । 🙁

দারুন তো 🙂

আমার প্রথম বায়ার এক আমেরিকা প্রবাসী ইন্ডিয়ান, সে আমার হায়ার করে যদিও এখন ও কাজটা করায় নাই , আমিও জব ইন্ড করি নাই, এতো ছ্যাচড়া, তার একটা জিনিশ ডেস্ক্রিপশন এ না বুজলে তাকে বললে সে রীতিমত ধমক দিয়ে আমাকে বসিয়ে রাখতো 🙁 ব্যাটাকে আমি সাইজ করার চেস্টায় আছি 😉

    @রাসেল১৩: হা হা হা , ভাই পেট ব্যাথা করে ফেলছেন হাসাইতে হাসাইতে, সাইজ করা শেষে আমাদের জানাইয়েন। 😀

আমার অভিজ্ঞতা ও খুব ভালো না, আমি নিজের পকেট থেকে টাকা ঢুকিয়ে নিজের ফ্রিল্যান্সার একাউন্ট টা সেভ করেছি।

ইন্ডিয়ানবায়ার দের ব্যাপারে আমি যতটুকু জানি যে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এরা সাববায়ার (মুল বায়ার থেকে কাজ নিয়ে সেকেন্ড টাইমে ওরা থার্ডপার্টির মাধ্যমে কাজ করায় নেয়)। মেহেদি আরও একটা ব্যাপার যেটা মনে হয় এমন বায়াররা কিন্তু বেশির ভাগই ফিক্সড রেটে টাইম বেধে দিয়ে কাজ করায় নিতে চায়। আর এমন বায়ারদের ব্যাপারে আসলেই কিন্তু সতর্ক থাকা উচিৎ। যদিও আমার ওডেস্ক আর ফ্রিল্যান্সার এ কাজ করার অভিজ্ঞতা কম, তবে আমি ফোরামবেস কিছু বায়ারের কাজ করেছি। ভুল কিছু বললে প্লিজ শুধরে দিও।

খুব ভালো হচ্ছে নিয়মিত চালিয়ে যাও, নতুন দের অবশ্যই উপকারে আসবে। নেক্সট লেখার অপেক্ষায়। ধন্যবাদ।

    @তাহের চৌধুরী (সুমন): তাহের ভাই সাব-বায়ার এর কাজ সব জায়গায় ই হয়। আর আপনার কথা অবশ্যই ঠিক , ইন্ডিয়ায় একটু বেশিই।

    ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য। 🙂

Level 0

লাইফ এর প্রথম প্রোজেক্ট পাইছিলাম এক ইন্ডিয়ান এর । শালায় কুত্তার মত ৬ দিন খাটাইছে , requirement বাড়াইতে বাড়াইতে আমারে এক্কেবারে শেষ করছে । শেষ এ কইছি আমি আপনার কাজ করতাম না । তয় একটা কথা ঠিক , ঠেক না খাইলে মানুষ শিখে না । আমি শিখছি তাই তো আজ ফ্রীলান্সিং করেই ভালো আছি ।

    @ঘুম চোর: ভাইয়ের সাথে কোলাকুলি করা দরকার। আমার ও প্রথম প্রজেক্ট ছিল এক ইন্ডিয়ান এর সাথে। লোকালি, ওডেস্কে না। ৬/৭ দিন খাটাইছে। তারপর নিজেই স্কাইপ থেকে রিমুভ করে দিছি।
    তার স্কাইপ নেমঃ grdesigning.

    সেই কাজের পর আজ প্রায় ১০-১১ মাস পার হইছে , ওডেস্কে এখন ভালোই আছি আপনাদের দোয়ায়।

কাজের জন্য আমেরিকানরাই বেশী ভালো, তাদের কাছে সময়ের মূল্য বেশী, তাই কাজের টাইমলাইন কোন ভাবে মিস করা উচিত না

প্রিয়তে।

নীল ভাই আপনাকে আরও একবার ধন্যবাদ। আমি গতকালও আপনার লেখাটা পরেছিলাম। আজকেও আবার আপনাকে এ বিষয়ে আরও লিখতে দেখে ভাল লাগছে। আমি সম্মূর্ন একমত। আমি সুমন ভাই এর সাথেও সহমত। কেননা অধিকাংশ Indian buyer ই অন্য কোনো European buyer এর থেকে কাজ নিয়ে আমাদেরকে দেয়। মাঝখানে তারা মোটা অংকের কমিশন নিয়ে নেয়। আমি নতুনদের জন্য বলব যদি Odesk এ আমাদের Subcontenent এর কোন buyer এর থেকে কাজ নেন তবে অবশ্যই শুধুমাত্র Hourly জব গুলো নেবেন। এক্ষেত্রে Fixed rate এর জব Apply করা থেকে বিরত থাকাই ভাল।

    @বিভ্রম: যাক , অধম তাইলে একটা নিয়মিত কাস্টমার পাইছে , 😀 , গঠনমূলক মন্তব্যের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

Level 0

nice…..chalie jan…pase asi

Level 0

thanks vi

ভাই, আমি ফ্রিলেন্সিং শিখতে খুবই আগ্রহী। কিন্তু কিভাবে অগ্রসর হব বুঝতেসি না। কেউ কি একটু সাহায্য করবেন এক্ষেত্রে?

Level 0

বস, সবগুলি কমেন্ত পরলাম। তবে একটা কথা আমি অমত। ইন্ডিয়ান বায়ারদেরকে জতটা খারাপ ভাবতেছেন আসলে কিন্তু তানা। আপনি যদি গ্রাফিক ডিজাইনার এর কাজ করেন, তাইলে দেখবেন তারা অনেক ভাল। আমি একদম নিউ প্রায় ৫ টা ইন্ডিয়ান বায়ার এর কাজ করছি। ৪ টার কাছ থেকে কোন প্রব্লেম হয় নাই। এমনকি একজন পরে আরো ২ টা প্রজেক্ট এ হায়ার করছে। আবার পাকিস্তানি একজনের সাথে এখন কাজ করি। হালায় পুরা জটিল লোক। আর ফিলিপাইন কোনটা পাইনাই। আম্রিকার পাব্লিকগুলি তো বহুত ভালা মানুষ।

আর আমার আওয়ারলি জবের অতটা দরকার হয় না। কাজ ভাল অইলেও টাকা দিয়া দেয় ফিক্সড জব এর । ভাইরে, আমার প্রোফাইল দেখলে আপ্নে হাট পাইরা কানবেন। 🙁 কতগুলি প্রজেক্ট এ কাম করছি। কিন্তু আওয়ার নাই আমার। সব ফিক্সড!!! কি যে কমু ভাই, এই দুক্কু আমি সইতে পারি না। আইজ যদি আমার মাত্র ১০০ আওয়ার থাকতো, তাইলে প্রতি সাপ্তায় মিনিমাম ২০ টা প্রজেক্ট এ হায়ার হইতাম গ্যারান্টি বস। 😛

হয়তো ভাবতেছেন ১০০ আওয়ার কিচু অইলো? এইতাতো আমাগোর ৩ দিনের কাম। 😀 😀 আরে ভাই, ডাটার কাম তো কিছু না। তবে গ্রাফিক এর কাম করতে জান, দেহেন কি ঠ্যালা। আওয়ার তুলতে পুরা বাশ জায়। কারন একেক্তা প্রজেক্ত এ কাজ করি ৮ বা ৪ বা ৭ ডলার পার আওয়ার এ, বুঝেন ঠ্যালা। 😀

    আপনার কমেন্ট অনেক মনোযোগ দিয়ে পরলাম। এসইও তে খুব দ্রুত আওয়ার বাড়ানো যায় , ১ ডলার / ২ ডলার পার আওয়ার এ মানুষ এখন এসইও করে তাই। গ্রাফিক্স ডিজাইনার থেকে ওয়েব ডেভলপার দের আওয়ার বাড়ানো কষ্ট, তারা কাজ করে ১০-৩০ ডলার পার আওয়ার এ, এইবার বুঝেন।

    আর ভাই আমি তো নিচে লেখে ই দিয়েছি , বিঃদ্রঃ ব্যতিক্রম সব জায়গায় যেমন আছে ; এখানে ও আছে । আসলে সবার কি খারাপ হতে হয়? আপনিই বলুন ? আমাদের দেশ এর যে এই অবস্থা আজ , আর জন্য হাতে গোনা কিছু লোক দায়ী, সবাই না। তেমনি , এই সব দেশের দুর্নাম এর জন্য ও হাতে গোনা কিছু লোক দায়ী।

    আপনার ফ্রিল্যান্সিং জীবন আরো সফল হোক , এই দোয়া করি। আওয়ার নিশ্চয় একসময় অনেক হবে। চিন্তার কোন কারন নেই। স্কিল বজায় রাখুন।

    শুভ রাত্রি।

@vadaimma ভাই আপনি আসলে কি বলতে চাইলেন বুঝলাম না। আপনি নিজেই সমস্যাহীনতার কথা বললেন আবার নিজেই সমাধান দেখালেন আবারও নিজেই সমস্যার কথা বললেন। ভাই শোনেন ODESK সম্পর্কে কোন পোষ্ট যেই লিখুক তাকে অবশ্যই SEO/data entry worker দের কথাটা মাথায় নিয়ে লিখতে হয় কেননা বাংলাদেশে বর্তমানে শতকরা ৮০ ভাগ ODESK contrator ই SEO তে কাজ করে।
আর আপনি এখনও কোন সমস্যায় পরেন নি তা আসলেই আমাদেরকে আশার পথ দেখায়। কিন্তু আমাদের subcontinent এ কোন Buyer এর কাজ করে ঠিকমত টাকা বা Feedback পেয়েছে এমন লোকের পরিসংখ্যান টা হয়ত আপনি নিজেও জানেন।

    Level 0

    @বিভ্রম: হুম ভাই, বুঝলুম বুঝলুম। আসলেই যারা ডাটা এর কাজ করেন তাদের অনেক প্রব্লেম এ পরতে হয়। তবে উনারাই কিন্তু বাংলাদেশে ফ্রীলাঞ্চিং এর পথিকৃৎ। 😀

এই জন্যই আমি আওয়ারলি ছাড়া কাজ করি না, তবে ইন্ডিয়ান বায়ারদের থেকে সব সময়ই আমি দুরে থাকি, আর এখন থেকে ফিলিপাইন থেকেও এখন দূরে থাকবো!
আমি শখের ফ্রিল্যান্সার, ইচ্ছা না হলে কোন কাজই করি না, কালও একটা বায়ারকে ছেড়ে দিছি শুধু কিছু খারাপ কথার জন্য।

এই জন্যই আমি আওয়ারলি ছাড়া কাজ করি না, তবে ইন্ডিয়ান বায়ারদের থেকে সব সময়ই আমি দুরে থাকি, আর এখন থেকে ফিলিপাইন থেকেও এখন দূরে থাকবো!
আমি শখের ফ্রিল্যান্সার, ইচ্ছা না হলে কোন কাজই করি না, কালও একটা বায়ারকে ছেড়ে দিছি শুধু কিছু খারাপ কথার জন্য। আর আমাদের উচিৎ কম টাকায় কাজ না করা!

আমি Odesk এ কাজ করতে আগ্রহী… কিন্তু একটা সমস্যা।

আমি Odesk এ প্রোফাইল 40% Complete করেছি, আর চারটা Test ও দিয়েছি।

কিন্তু, আমি পাঁচটা Job এর জন্য Bid করলে তারা সেগুলো Pending করে রেখেছে। অর্থাৎ Accept ও করেনা, Decline ও করেনা। আমি এখন কি করব ?

🙁

    @নামনাই: আপনার সমস্যা আর একটু ক্লিয়ার করে https://www.facebook.com/groups/odeskhelp/ এই গ্রুপ এ বলুন। আমি উত্তর দিবো সাথে অন্যান্য এক্সপার্টদের ও মতামত পাবেন। সেটা আপনার উপকারে আসবে বলে আমি মনে করি। 🙂

    Level 0

    @নামনাই: নামনাই ভাই, আপনি কিসের কাজ করেন সেইটা জানলে ভাল হইতো। তাইলে পুরা বিস্তারিত বইলা দিতাম আরকি 😛

    Level 0

    @নামনাই: জবগুলো উইথড্র করুন। সংশ্লিষ্ট পেজ এ গিয়ে এ অপশন পাবেন।

Level 0

Ass viayara employer, freelancer der total koto payment dise aita kamne dekha jai(www.frelancer.com)…………100% milestone korar pore o taka poua jaina r milestone chara to somvob e na……………

Level 0

জটিল পোস্ট করেছেন। পড়ে খুবই উপকৃত হলাম। ধন্যবাদ।

সব গুলো comment পড়লাম, খুব ভাল লাগলো। আমি ও ফ্রিল্যান্সার হতে চাই, আমাকে সাহায্য করবেন? আমাকে সেজন্য কি করতে হবে দয়া করে জানাবেন।

পুরাই উড়াধুরা পোস্ট!!! হিহ হিহ !! 😀

Level 0

vai ami akane nutun, internet a income korte chai but partesi na ami apnar shathe jogajog korte chai, apni ki amake apnar mobile number send korle valo hoto, email : [email protected]
thanks.

Level 2

বস কঠিন লেখেছেন। Informative টিপস
ফ্রী ফেসবুক ফ্যান,G+,ও টুইটার ফলোয়ার