এবার মোবাইল দিয়ে পেইজা একাউন্ট খুলুন সম্পূর্ন টিটোরিয়াল সাথে বুষ্ট করুন ফেসবুক পেইজ

Payza,পেজা অন্যতম অনলাইন পেমেন্ট পদ্ধতি।এখানে পেজা একাউন্ট সম্পর্কে সংক্ষেপে আলোচনা করা হবে।

  1. পেজার ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন,’Sign-up now‘ বাটনে ক্লিক করুন
  2. একাউন্ট টাইপ সিলেক্ট করুন।(Personal Pro ভালো কারণ Personal Starter এ মাসে ৪০০ ডলার ও বছরে ২০০০ ডলারের বেশি লেনদেন করা যায় না।Personal Pro তে টাকা রিসিভ করতে প্রতি ট্রানজেকশন এ ফি হল ২.৫%+$০.২৫ ডলার আর Personal Starter এ রিসিভ করতে কোন ফি নেই।যে কোন সময়ে একাউন্ট টাইপ পরিবর্তন করা যায়)
  3. পরবর্তীতে সাইন আপ ফরম আসবে দুটি ধাপে।সঠিক তথ্য দিয়ে ফরমদুটি পূরণ করুন।(ইমেইলে পাবলিক ইমেইলের পরিবর্তে একটি নতুন ইমেইল দিলে ভাল হয়।তাহলে একাউন্ট হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা নেই)একটি কনফার্মেশন লিঙ্ক ইমেইল এড্রেসে পাঠানো হবে।লিঙ্কটিতে ক্লিক করে একাউন্ট কনফার্ম করুন।

পেজা একাউন্ট তৈরি হয়ে গেল।

একাউন্ট খোলা ও কিভাবে Bkash একাউন্ট যোগ করবেন দেখুন

পেজা একাউন্ট নম্বর: যে ইমেইল দিয়ে সাইন আপ করবেন সেটি পেজা একাউন্ট নম্বর।

ডিপোজিট:

অনেক সময় অনলাইনে কোন সাইটে পেমেন্ট(পন্য ক্রয়,আপগ্রেড,ইনভেস্ট etc) দিতে পেজাতে ডিপোজিট করতে হয়।কেডিট কার্ড(মাস্টার ও ভিসা),ব্যাংক ট্রান্সফার,ব্যাংক ওয়ার ইত্যাদির মাধ্যমে ডিপোজিট করা যায়।কিন্তু দুর্ভাগ্য বাংলাদেশ থেকে ব্যাংকের মাধ্যমে ডিপোজিট করা যায় না।আর কেডিট কার্ড কজনেরই বা আছে।তবে কেডিট কার্ড থাকলে খুব সহজেই ডিপোজিট করা যায়।যাই হোক হতাশ হবার কিছুই নেই।বর্তমানে ফেসবুকে অনেক গ্রুপ বা পেজ আছে যেখানে ডলার বেচা কেনা হয়।সেখান থেকে ডলার কিনে নিয়ে ডিপোজিট করতে পারবেন।ফেসবুকে সার্চ দিলেই এ রকম গ্রুপ পাওয়া যাবে।

Payza একাউন্ট ভেরিফাই:

পেজা থেকে সকল সুবিধা পেতে একাউন্টটি ভেরিফাই করতে হবে।ভেরিফাই করতে-

  1. একাউন্টে লগ ইন করুন
  2. Profile এ ক্লিক করুন
  3. Account Verification সিলেক্ট করুন।এখানে দুটি অপশন থাকবে।যেকোন একটির মাধ্যমে ভেরিফাই করা যাবে।
  • Option A-Document Validation Option :এ এখন কিভাবে Payza একাউন্ট ভেরিফিকেশন করবেন:
    Document Validation পদ্ধতি ব্যবহার করে একাউন্ট ভেরিফাই করতে গেলে যা যা লাগবে :
    আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ড অথবা পাসপোর্ট অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্সের স্ক্যান কপি।

আপনার আপলোড করা ডকুমেন্টের প্রিভিউ দেখতে পাবেন।
সবকিছু ঠিক থাকলে Send অপশনে ক্লিক করে রিকোয়েস্ট সেন্ড করুন।
ভেরিফিকেশন রিকোয়েস্ট দেবার 2-3 দিনের মাঝেই পেজা থেকে রিপ্লাই পাবেন।
পনার আপলোড করা ডকুমেন্ট যদি সঠিক হয় তাহলে পেজা আপনার একাউন্ট ভেরিফাই করে দেবে।
তবে যদি আপনার ভেরিফিকেশন রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করা না হয় তাহলে পেজা থেকে আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে কি কারনে আপনার রিকোয়েস্ট একসেপ্ট কয়ার সম্ভব হয়নি।
একাউন্ট ভেরিফাই করার রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না হবার কিছু কারন :
আপনার সাবমিট করা ন্যাশনাল আইডি কার্ডের স্ক্যান কপি অস্পষ্ট হলে।
আপনার ব্যাংক স্টেটমেন্টে দেয়া নাম বা ঠিকানার সাথে যদি আপনার পেজা একাউন্টের নাম বা ঠিকানা না মেলে।
আপনার সাবমিট করা ডকুমেন্ট ব্রোকেন হলে।

প্বেইজা কার্ড দিয়ে বুষ্ট করা সহ দেখুন ভিডিও তে

 

Level 0

আমি খাদিজা নাজমুল। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 25 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস