রহস্যময় স্টোনহেঞ্জ সার্কেল রহস্য উন্মোচন

এমন কিছু জায়গা রয়েছে যার রহস্য এখনো অজানা। আজ জানাবো এমনই একটি জায়গার কথা যা এখনও রহস্যই রয়ে গেছে। কারা এটি তৈরি করেছেন তারও কোন সঠিক ব্যাখ্যা নেই। #বলছি রহস্যময় "স্টোনহেঞ্জ" সার্কেল এর কথা। সারি সারি বিশাল বিশাল পাথর সাজিয়ে রাখা হয়েছে বৃত্তাকারে। এতো বড় বড় পাথর কারা এভাবে সাজিয়ে রেখেছেন। কিভাবে এটা সম্ভব হলো, কেন এটা করা হয়েছিল, কারা এটা করেছিল ওই রহস্য আজো অজানা।

#ধারণা করা হয় ২৫০০-৩০০০ বছরের পুরাতন একটি রহস্য এই স্টোনহেঞ্জ। এটি ইংল্যান্ডের উইলশায়ারে অবস্থিত। #ধারণা করা হয় ওই চক্রটা ব্যবহার করা হতো আহত সৈন্যদের আরোগ্য লাভের ট্যাম্পল হিসেবে। (বিভিন্ন গেমে কিন্তু এটা দেখা যায়) অনেকে বিশ্বাস করে এটা এলেয়েনদের তৈরি।

#প্রাচীনকালে তারা এটি বিমানবন্দর হিসেবে ব্যবহার করতো। এখানে নিয়মিত এলিয়েনদের যান উঠা-নামা করতো।

#তবে যে মতবাদটি সবচেয়ে বেশী গ্রহনযোগ্য তা হলো এটি একটি সেক্রিফাইস বেদী বা মন্দির মানে এখানে বলি দেওয়া হতো। কিন্তু কারা এটা ব্যবহার করতো এ প্রশ্ন এখনো অজানা।

#যাই হোক, এবার আসি এর গঠনশৈলীতে, সমতল ভূমির প্রায় ৮ মাইল উত্তরে স্টোনহেঞ্জ অবস্থিত। এতে বৃত্তাকারে বড় বড় দণ্ডায়মান পাথর রয়েছে, সার্কেলের ভিতরে যে কয়টা ব্লুস্টোন আছে তার প্রতিটির ওজন নিখুঁতভাবে ৬ টন এবং এগুলোর চতুর্দিকে মৃত্তিকা নির্মিত বাঁধ রয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

#স্টোনহেঞ্জের গঠন খানিকটা জটিল। এর বাইরের দিকে একটি বৃত্তাকার পরিখা রয়েছে। প্রবেশ পথটির কিছুটা দূরেই রয়েছে মাটির বাঁধ। এ বাঁধের ভেতর চতুর্দিকে বেষ্টন করে আছে ৫৬টি মৃত্তিকা গহ্বর। পাথরগুলোর মধ্যে আরও দুই সারি গর্ত বেস্টন করে আছে।

#পাথরগুলোর গঠনের মধ্যে আছে দুইটি বৃত্তাকার এবং দুইটি ঘোড়ার খুরের নলের আকারবিশিষ্ট পাথরের সারি। এ ছাড়াও কতগুলো পৃথক পাথর রয়েছে যেগুলোকে অলটার স্টোন বা পূজা বেদীর পাথর বা শ্লটার স্টোন বা বধ্যভূমির পাথর বলা হয়।

Level 0

আমি মার্স টেক। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 2 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 35 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 5 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 4 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস