সিস্টেম ড্রাইভ বা যেকোন ড্রাইভের স্পেস বাড়াতে-কমাতে পারেন কোন ইউটিলিট সফটওয়্যার ছাড়াই

আমাদের মাঝে অনেকেই সি ড্রাইভের স্পেস নিয়ে সমস্যায় পড়েন, আবার অনেকে সি ড্রাইভের স্পেস কম বলে ইচ্ছে থাকা সত্ত্বে নতুন কোন অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করতে পারছেন না অথবা সি ড্রাইভের স্পেস লো দেখাচ্ছে। আবার এমনো দেখা যায় যেকোন ড্রাইভের সাইজ ছোট / বড় করা দরকার, নতুন পারটিশান করা দরকার হয়। যার জন্য খুজতে হয় কোন ইউটিলিটি সফটোয়ার অথবা কোন অভিজ্ঞ কাউকে। বিশেষ করে এই সমস্যা দেখা যায় নোটবুক/লেপটপের ক্ষেত্রে। সাধারনত নোটবুক/লেপটপে একটি মাত্র ড্রাইভ থাকে যার ফলে, ব্যাকআপ বা অন্য যে কোন জরুরী প্রয়োজনে ড্রাইভের বা পারটিশনের  প্রয়োজন হয়ে থাকে। এই সমস্যাগুলোর সমাধান আমরা পেতে পারি উইন্ডোজ  ভিসটা এবং উইন্ডোজ সেভেন থেকে। এবং এটা সম্পন্ন করতে খুব কম সময়ের  প্রয়োজন হয়।

খুব সহজে C ড্রাইভের স্পেস বাড়াতে বা কমাতে পারবেন।

যেকোন ড্রাইভের সাইজ ছোট / বড় করতে পারবেন

নতুন পার্টিশন তৈরী করতে পারবেন।

নীচের স্ক্রীনশট গুলি খেয়াল করলে বুঝতে সুবিধা হবে।

sr71

মাইকম্পিউটার এর উপর মাউস ওর রাইট বাটন ক্লিক করে ম্যানেজ অপশনে ক্লিক করুন।

sr7

এবার শ্রিংন্ক ভলিউমে ক্লিক করুন

sr73

এবারে যে ড্রাইভকে ছোট-বড় করতে চান তা সিলেক্ট করুন

sr74

অতপর নিম্নের স্ক্রিনটি দেখতে পাবেন

sr75

একটু অপেক্ষা করুন...

sr76

এখন প্রয়োজন অনুযায়ী স্পেস বরাদ্ব করুন এবং শ্রিন্ক এ ক্লিক করুন। কিছুক্ষন অপেক্ষা করার পর দেখবেন পারটিশন করা হয়ে গেছে, এভাবে যতখুশি স্পেস অনুযায়ী পারটিশন করতে পারেন।

Level 2

আমি এম ইয়াকুব। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 42 টি টিউন ও 325 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 16 টিউনারকে ফলো করি।

ICT Specialist & IT Business Entrepreneurship, Course Curriculum expert, eLearning, Education & Industry Partnership expert. Expertise in Cyber Security, Cloud Computing, AI, Big Data, RFID, Technology Project Management, Change management, leadership & the development of comprehensive large scale eHealth programs. Former Asset Professor in University of Kuala Lumpur, Kuala Lumpur,...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভাই খুবি ভাল টিউন। সত্যি কথা বলতে কি প্রায় টিউনই আমার কাছে খুব ভাল মনে হয়। কিন্তু কষ্টের ব্যাপার হল, এখন নিজের পেইজ এর ফেভারিটস এ নেওয়ার পন্থা টা শিখে উঠতে পারলাম না। আমি বর্তমানে সব ভাল লাগা টিউনকে বুকমার্ক করছি গুগল এ কিন্তু আমি লাইক এ ক্লিক করেও পরে কোথা থেকে তা খূঁজে পাব বুঝছিনা। প্রোফাইলে গিয়ে অনেক ঘেটেও পাইনি। আপনি কি দয়া করে একটু সাহায্য করবেন? বিস্তারিত ভাবে জানিয়ে? বড় কষ্টে আছি। ঃ(

    আপনি যদি গুগলি ক্রোম ব্যবহার করে থাকেন তাহলে ব্রাউজার খোলা অবস্থায় “Ctrl+Shift+b”প্রেস করলে বুকমারক ম্যানেজার দেখতে পাবেন। অত:পর বুকমারক বার এ আপনার বুকমারকৃত সকল ওয়েভ সাইটের টাইটেল এবং ইউআরএল দেখতে পাবেন।
    আর বুকমারক করতে হলে ব্রাউজারের টুলবারে স্টার আইকনে ক্লিক করলেই বুকমারক হয়ে যাবে।
    আশা করি আপনার কষ্টটা দূর হবে।
    ধন্যবাদ আপনাকে।

ধন্যবাদ ইয়াকুব ভাই আপনাকে পার্টিশন সম্পর্কে সুন্দর একটি টিউন করার জন্য। কিন্তু এই প্রক্রিয়ার ইউন্ডোজ এক্সপিতে সম্ভব নয় ? যদি না হয় তাহলে এক্সপিতে এই কাজটা কি ভাবে করা যেতে পারে। যানালে খুশি হব। আপনার উজ্জল ভবিষ্যতের আশায় হাবীবুল্লাহ আল কাছেম।