ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

আপনার ডাউনলোডের ক্ষুদা মিটান Seedbox এর সাহায্যে!

টিউন বিভাগ টিপস এন্ড ট্রিকস
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

আপনি যদি টরেন্ট দিয়ে ডাউনলোড করে থাকেন তাহলে আজকের এই টিউনটি আপনারই জন্য! টরেন্টে ডাউনলোডের ক্ষেত্রে আমাদেরকে যে বিষয়ে সব সময়েই খেয়াল রাখা উচিত এবং খেয়াল রাখতে হয় সেটি হলো প্রাইভেসি! টরেন্ট এর মাধ্যমে ডাউনলোডের ক্ষেত্রে আপনার প্রাইভেসি ইন্টারনেটে উন্মুক্ত হয়ে যেতে পারে যতই্ শক্তিশালী এন্টিভাইরাস ব্যবহার করেন না কেন! এছাড়াও আপনার ইন্টারনেট আইএসপি তো আপনার নেট কার্যক্রম মনিটর করেই আসবে এটা নতুন করে কিছু বলার নেই! টরেন্ট এর ক্ষেত্রে ডাউনলোড করছেন কিন্তু সিডবক্স এর নাম শুনেন নি! এটা কেমন যানি হয় না?

ADs by Techtunes ADs

আচ্ছা তাহলে Seedbox জিনিস টা কি?

হাই স্পিড ডাটা সেন্টারযুক্ত একটি রিমোট সার্ভার হচ্ছে এই সিডবক্স যেটিতে একটি পাবলিক আইডি এড্রেস রয়েছে যারা মাধ্যমে এদের ইউজাররা নিরাপদভাবে টরেন্ট ডাউনলোড করতে পারে। মানে একটি পাবলিক আইপি এড্রেস দিয়ে একাধিক ব্যবহারকারীরা তাদের প্রাইভেসিকে গোপনে রেখে টরেন্ট থেকে ফাইলস নামাতে পারবে! এটাই হচ্ছে সিডবক্স। সাধারণত একটি সিডবক্সের স্পিড হয় সর্বনিম্ব ১০০মেগাবাইট পার সেকেন্ড থেকে ১০ গিগাবাইট পার সেকেন্ড পর্যন্ত! সিডবক্স কে একটি সুপার কম্পিউটার মনে করুন যার একমাত্র কাজ হচ্ছে টরেন্ট থেকে ফাইলস ডাউনলোড করা! আজকের টিউনে আমি আপনাদেরকে বোঝানো চেষ্টা করবো কেন আপনি টরেন্টের ক্ষেত্রে সিডবক্স ব্যবহার করবেন! কিভাবে সিডবক্স ব্যবহার করবেন?

প্রতিটি সিডবক্সে এক বা একাধিক টরেন্ট ক্লায়েন্টস থাকে যেগুলোতে ওয়েব ইউজার ইন্টারফেস থাকে যেটা ব্যবহার করে আপনি সিডবক্সে যেকোনো ব্রাউজারে লগইন করে আপনার সিডবক্সকে রিমোটলি কনট্রোল করতে পারবেন। ইন্টারফেসে আপনি সরাসরি টরেন্ট ফাইল লোড করতে পারবেন অথবা টরেন্ট ইউআরএল লোড করতে পারবেন। লোড হয়ে গেলে আপনি তখনই টরেন্ট ফাইল থেকে ডাউনলোড করা শুরু করতে পারবেন এবং টরেন্ট ডাউনলোড হয়ে গেলে টরেন্টটিতে সিড করতে থাকবে। এসবই কিছু হবে সিডবক্সের পাবলিক আইপি এড্রেস ব্যবহার করে মানে আপনার পিসির আইপি এড্রেস ওয়েবে রিভিল হবে না। আর এতে আপনার প্রাইভেসি থাকবে অটুট। টরেন্ট ফাইলটি প্রথমে সিডবক্সে ডাউনলোড হবে। একবার সিডবক্সে ডাউনলোড হয়ে গেলে আপনি আপনার পিসিতে যখন খুশি তখন ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। এর জন্য আপনি এফটিপি বা এসএফটিপি (FTP or SFTP) কানেক্টশনের মাধ্যমে যেকোনো এফটিপি ক্লায়েন্ট (যেমন FileZilla) দিয়ে করতে পারবেন। তবে কিছু কিছু সিডবক্স প্রোভাইডাররা আলাদা করে HTTP ফাইল ব্রাউজার সরবরাহ করে থাকে যেটার ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি সিডবক্সের ফাইলগুলোকে ওয়েব ব্রাউজারের মাধ্যমে ডাউনলোড করার সুবিধা পাবেন। সিডবক্স ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি টরেন্ট দুনিয়ার যেকোনো বেআইনি অনুপ্রবেশকে রোধ করতে পারবেন।

সিডবক্স কেন ব্যবহার করবেন?

১) স্পিড:

প্রায় প্রত্যেকটি সিডবক্স একাউন্টে নুন্যতম স্পিড থাকে ১০০ মেগাবাইট পার সেকেন্ড বা তার থেকেও বেশি! যেটা বাংলাদেশের নেট স্পিড থেকে অনেক বেশি! খুলনায় আমি ১২ মেগাবাইট পার সেকেনন্ড পর্যন্ত গতির নেট প্যাকেজ দেখেছি। মানে সিডবক্সে প্রায় সেকেন্ডে 3750KB/s গতিতে টরেন্ট আপনি নামাতে পারবেন। আর সিডবক্স থেকে আপনার পিসিতে ফাইলটি নামানেরা স্পিড পাবেন পিসি থেকে পিসিতে ফাইল কপি পেস্ট করার মতো গতিতে! মানের মূলত প্রাইভেসির সাথে স্পিড পাবার জন্যই আপনি মূলত সিডবক্স ব্যবহার করবেন!

২) ডাউনলোডিং:

একবার সিডবক্স সার্ভারে আপনার কাংখিত টরেন্ট ফাইলটি ডাউনলোড হয়ে গেলে আপনি এবার সেটা আপনার পিসিতে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন পেনড্রাইভ থেকে ফাইল কপি করার স্পিডে। মূলত যারা ব্রডব্যান্ড ব্যবহার করে তারা অবশ্যই FTP সার্ভারের কথা জেনে থাকবেন এবং ব্যবহার করে থাকবেন! আপনার এফটিপি সার্ভার থেকে যেমন স্পিড ফাইল নামাতে পারবেন ঠিক তেমনই স্পিডে সিডবক্সের ফাইলগুলোকে আপনার পিসিতে ডাউনলোড করতে পারবেন!

৩) আপলোডিং

যারা টরেন্ট একাউন্ট ম্যানেজ করে থাকেন তাদের জন্য ডাউনলোডিংয়ের যেতে সিডিংয়ের ব্যাপারে বেশি সিরিয়াস হয়ে থাকেন। ভালো পরিমাণের সিডিং রেশিও না থাকলে যেকোনো টরেন্ট ফাইল অকেজো হয়ে পড়ার চান্স থাকে। আর আপনি সিডবক্সের মাধ্যমে মাত্র মিনিটে ১:১ রেশিও দিতে পারবেন আপনার আপলোডকৃত টরেন্টগুলোতে এবং দিনে ১০:১ মানে খুবই ভালো রেশিও থাকবে আপনার টরেন্ট ফাইলগুলোতে। মূলত আপলোডিংয়ের জন্যই প্রিমিয়াম সিডবক্স একাউন্ট মানুষ ব্যবহার করে থাকে।

৪) প্রতিযোগীতা:

ADs by Techtunes ADs

আপনার হয়তো জানা নেই যে, প্রাইভেট ট্যাকাররা একে অন্যের সাথে প্রতিযোগীতায় সব সময়ই লেগে থাকে, এবং সিডবক্স ব্যবহারের মাধ্যমে তারা প্রচুর পরিমাণে সুবিধা পেয়ে থাকেন। তাই আজকালা যেকোনো Elite Private Trackers দের জন্য সিডবক্স একাউন্ট মেন্ডটরি ভাবে ব্যবহার করতে বলা হয়েছে।

৫) বাসার ইন্টারনেট ফ্রি!

সিডবক্স ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি আপনার বাসার ইন্টারনেটকে টরেন্ট ডাউনলোড থেকে ফ্রি করে দিতে পারবেন। আর একে যেমন একদিকে আপনার ব্যান্ডউইথ বাঁচবে, অন্যদিকে আপনার সময়ও সাশ্রয় হবে! আর প্রাইভেসির ব্যাপারে তো নতুন করে কিছু বলার নেই!

৬) ISP লিমিট ক্রস!

আপনি যদি লিমিটেড ব্রডব্যান্ড লাইন ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আনলিমিটেড ডাউনলোডের মজা আপনি নিতে পারবেন সিডবক্স একাউন্ট ব্যবহারের মাধ্যমে। কারণ আপনার সিডবক্স ট্রাফিক আপনার ISP account stats য়ে কাউন্ট হবে না!

Seedbox কিভাবে ব্যবহার করবেন?

সিডবক্স কেন ব্যবহার করবেন আশা করি আপনাদেরকে আমি সেটা বুঝাতে পেরেছি। এবার আমি দেখাচ্ছি আপনি কিভাবে একটি সিডবক্স ব্যবহার করবেন! কিন্তু মনে রাখবেন সিডবক্স কিন্তু ফ্রিতে আসবে না। নির্দিষ্ট মূল্য পরিশোধ করেই আপনি সিডবক্স ব্যবহার করতে পারবেন।

নিচের লিংকে গিয়ে আপনি বিভি্ন্ন প্রকারের দামের বিভিন্ন রকম সিডবক্স সার্ভার লিস্ট দেখতে পারবেন: http://seedboxgui.de/seedbox/

তবে এছাড়াও নেটে সার্চ দিলে আপনি বিভিন্ন ধরনের ফ্রি সিডবক্স পেতে পারেন তবে নিজে খেয়াল রেখে ফ্রি জিনিস ব্যবহার করবেন! তো আজ এ পর্যন্তই থাকুক! সবাইকে বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে আজকের টিউনটি এখানেই শেষ করছি!

ADs by Techtunes ADs
Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 659 টি টিউন ও 430 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 88 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস